আমরা প্রতিনিয়ত শিখছি


 কেয়া, আনিকা

তরুণ দুই উদ্যোক্তা তানজিন হাবিব কেয়া এবং ফাহিমা মুর্তজা আনিকা। লেখাপড়ার পাশাপাশি দুজনে মিলে ‘পার্লিভা ইভেন্টস্’  নামে ওয়েডিংভিত্তিক ব্যবসা শুরু করেন। নিজেদের ব্যবসার ভাবনা, সম্ভাবনা নিয়ে কথা বলেছেন আনন্দধারার সঙ্গে।

আনন্দধারা : একসঙ্গে কবে থেকে শুরু করলেন?

তানজিন হাবিব কেয়া : আমরা দু’জনই আলাদাভাবে নিজেদের ভার্সিটি কিংবা নিজেদের সার্কেলের মধ্যে কাজ করেছি। কিন্তু প্রফেশনালি কাজ করা হয়নি। কয়েক মাস ধরে একসঙ্গে কাজ শুরু করি।

ফাহিমা মুর্তজা আনিকা : এর মধ্যে আমরা চারটা ইভেন্ট শেষ করেছি। সামনে আরো বেশকিছু কাজ রয়েছে।

আনন্দধারা : পেশা হিসেবে নেয়ার ইচ্ছা আছে কী?

তানজিন হাবিব কেয়া : অবশ্যই। আমি এলএলবি পড়ছি। এটা ছাড়াও আমার ফার্নিচারের একটা ব্যবসা রয়েছে।  ব্যবসাটা নিয়ে পরিকল্পনা চলছে এবং সেভাবেই কাজ করছি।

ফাহিমা মুর্তজা আনিকা : আমরা স্কুল ফ্রেন্ড। দীর্ঘদিন ধরে আমাদের ইচ্ছা ছিল একসঙ্গে কাজ করার। সব ধরনের পরিকল্পনা করেই কাজ করতে চাই।

আনন্দধারা : ব্যবসায় আসার ইচ্ছা কেন হলো?

তানজিন হাবিব কেয়া : ব্যবসার প্রতি ছোটবেলা থেকেই প্রবল আগ্রহ। সেই কারণে ভবিষ্যৎ সফলতা অর্জনে নিজের আগ্রহের প্রতি ভালোবাসা বাড়িয়ে দিয়েছি।

ফাহিমা মুর্তজা আনিকা : বরাবরই স্বাধীনভাবে কাজ করতে চাই। ব্যবসা ছাড়া স্বাধীন আর কোনো মাধ্যম আছে বলে জানি না ।

আনন্দধারা : ওয়েডিং নিয়ে আপনাদের পরিকল্পনা কী?

তানজিন হাবিব কেয়া : ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের ওপর রিসার্চ করতে খুব তাড়াতাড়ি দেশের বাইরে যাব। প্রতিনিয়ত শিখছি  আরো শিখতে চাই।

ফাহিমা মুর্তজা আনিকা : সব ধরনের শিক্ষা ও রিসার্চ আমাদের ব্যবসাকে আরো সমৃদ্ধ করার জন্য। নিজেদের আলাদাভাবে উপস্থাপন করতে চাই।

আনন্দধারা : ওয়েডিংয়ের ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা কেমন?

তানজিন হাবিব কেয়া : এখন অনেক ওয়েডিং কোম্পানি আছে। প্রত্যেকে প্রতি বছর প্রচুর কাজ করছে এবং এর সম্ভাবনাও আশানুরূপ।

ফাহিমা মুর্তজা আনিকা : সবকিছু নির্ভর করে কাস্টমারদের চাহিদার ওপর। চাহিদা ঠিকভাবে পূরণ করতে পারলে এ ব্যবসায় সফলতা অর্জন করা সম্ভব।

আনন্দধারা : সমাজে মেয়েদের সব পেশাকে স্বাধীনভাবে নিতে পারে না।  বিষয়টিকে আপনারা কীভাবে দেখেন?

তানজিন হাবিব কেয়া : বিষয়টা ভাবতেই খুব খারাপ লাগে। তবে আমার কাছে মনে হয় একটি মেয়ের পরিবারই তার সবচেয়ে বড় সমাজ। পরিবার চাইলে একটা মেয়ে তার ইচ্ছামতো যে কোনো পেশায় নিজেকে যুক্ত করতে পারে।

ফাহিমা মুর্তজা আনিকা : আমার কাছে মনে হয় একটি মেয়ে অদম্য ইচ্ছাশক্তি দ্বারা যে কোনো কাজ করতে পারে।

যোগাযোগ :  পার্লিভা ইভেন্টস্ ০১৬৮০৭২৪০৪৭, ০১৭৩০২৬২২৯২

Anonymous এর ছবি
CAPTCHA
এই প্রশ্নটি আপনি একজন মানব ভিজিটর কিনা তা যাচাই করার জন্য এবং স্বয়ংক্রিয় স্প্যাম জমাগুলি প্রতিরোধ করার জন্য।