চলে গেলেন বরেণ্য কণ্ঠশিল্পী খালিদ হোসেন

নজরুল সংগীতের বরেণ্য শিল্পী, স্বরলিপিকার ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সংগীতগুরু খালিদ হোসেন মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

বুধবার (২২ মে) রাত ১০টা ১৫ মিনিটে তিনি রাজধানীর জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

খালিদ হোসেন অনেক দিন ধরেই বার্ধক্যজনিত নানা অসুখ ভুগছেন। পাশাপাশি ফুসফুস ও হৃদ্‌যন্ত্রের জটিলতা রয়েছে।

এর আগে গত বছরের শুরুর দিকে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি হন খালিদ হোসেন। তখন থেকে প্রতি মাসে তাকে একটি বিশেষ ইনজেকশন দিতে হয়। এ কারণে ভর্তি হতে হয় হাসপাতালে। ইনজেকশন দেওয়ার দুদিন পরই তিনি বাসায় ফিরে যান। কিন্তু ইনজেকশন দেওয়ার পর শারীরিক অবস্থার হঠাৎ অবনতি ঘটায় তাকে সিসিইউতে রাখা হয়েছে।

খালিদ হোসেনের চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত বছর ১০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কৃষ্ণনগরে খালিদ হোসেনের জন্ম ১৯৩৫ সালের ৪ ডিসেম্বর। দেশ বিভাগের পর বাবা-মায়ের সঙ্গে তিনি চলে আসেন কুষ্টিয়ার কোর্টপাড়ায়। ১৯৬৪ সাল থেকে স্থায়ীভাবে ঢাকায় আছেন। খালিদ হোসেন একুশে পদক পেয়েছেন ২০০০ সালে। এ ছাড়া পেয়েছেন নজরুল একাডেমি পদক, শিল্পকলা একাডেমি পদক, কলকাতা থেকে চুরুলিয়া পদকসহ অসংখ্য সম্মাননা।

Anonymous এর ছবি
CAPTCHA
এই প্রশ্নটি আপনি একজন মানব ভিজিটর কিনা তা যাচাই করার জন্য এবং স্বয়ংক্রিয় স্প্যাম জমাগুলি প্রতিরোধ করার জন্য।

Home popup