‘মনে হচ্ছিল আর কারো সঙ্গে দেখা হবে না’: অনিমেষ আইচ

একটা ঝড়ের ঘটনা আমাকে খুব নাড়া দেয়। অনেক বছর আগের ঘটনা। কিছুতেই ভুলতে পারি না সেই ঘটনা। এটা এখন থেকে ২২ বছর আগের ঘটনা। আমার দাদিকে নিয়ে লঞ্চে করে বরিশাল যাচ্ছিলাম। মেঘনা নদীর মাঝখানে আসতেই ঝড় উঠল। অনেক ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম সেদিন। আমার সঙ্গে দাদি ছিল। দাদির বয়স তখন অনেক। আমার আব্বাকে সারপ্রাইজ দেয়ার জন্য দাদিকে সঙ্গে নিয়ে যাচ্ছিলাম। ঝড়ের মধ্যে পড়ে ঠিক কী করব বুঝে উঠতে পারছিলাম না। ঝড় আর বৃষ্টিতে একাকার হয়ে গিয়েছিল। মনে হচ্ছিল একটু পর মারা যাব। কী ভয়াবহ ছিল সেটা বলে বোঝাতে পারব না। তিনতলার কাছাকাছি পানি উঠে গিয়েছিল। লঞ্চের সারেং যেখানে বসে, আমরা সেখানে গিয়ে ঠাঁই নিয়েছিলাম। তার পরও একটু শান্তি পাচ্ছিলাম না। মনে হচ্ছিল আর বুঝি কারো সঙ্গে দেখা হবে না। যারা এমন ঘটনার মধ্যে পড়ে তারা শুধু জানে কেমন লাগে। চারদিক অন্ধকার কিছুই দেখা যচ্ছে না। সেদিনের ঝড়টা প্রায় ঘণ্টাখানেক স্থায়ী হয়েছিল। যখন ঝড় থেমে গেল মনে হলো লাইফ ইজ বিউটিফুল। ঝড় যে কী বীভস হতে পারে সেদিন বুঝেছিলাম। আরেকটা ঝড়ের কথা মনে আছে আশুলিয়ার কাছে একটা নাটকের শ্যুটিং করছিলাম। নাটকের অভিনয়শিল্পী ছিলেন বিদ্যা সিনহা মিম আর পাভেল (আজাদ আবুল কালাম) ভাই। শ্যুটিংয়ের মাঝে হঠা করে ঝড় এলো। আমরা একটু দূরে আশ্রয় নিলাম। পাশেই একটা গাছে বাজ পড়ল। সেদিন অনেক ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। চোখের সামনে এমন দেখছি অনুভূতিটা কেমন হতে পারে ঠিক বোঝাতে পারব না।

এছাড়া ঝড়ের মধ্যে আম কুড়ানোর স্মৃতি আমাদের অনেকেরই আছে। বৈশাখ মাসের জন্য অপেক্ষা করতাম কখন ঝড় আসবে আর কখন আম কুড়াতে যাব বন্ধুদের সঙ্গে। আম কুড়ানোর অনেক ঘটনা আছে। ছোটবেলাতে যাদের গ্রামে কেটেছে সবারই এমন আম কুড়ানোর অহরহ ঘটনা আছে।  

Anonymous এর ছবি
CAPTCHA
এই প্রশ্নটি আপনি একজন মানব ভিজিটর কিনা তা যাচাই করার জন্য এবং স্বয়ংক্রিয় স্প্যাম জমাগুলি প্রতিরোধ করার জন্য।