থানসের 'স্ন্যাপ' পণ্ড হবে

যখন মার্ভেল ভক্তরা মাথা চুলকাচ্ছে গত বছরের ‘অ্যাভেঞ্জার, ইনফিনিটি ওয়ার” এ থানসের করা ধ্বংসযজ্ঞ থেকে কি করে সব কিছু পুনরুদ্ধার করা যাবে। সেখানেই কিছু সুসংবাদ পাওয়া গেছে যা অ্যাভেঞ্জার ভক্তদেরকে আশাবাদী করবে। এই বছরের এপ্রিলে মুক্তি পেতে যাওয়া ‘অ্যাভেঞ্জারসঃ এন্ড গেম’ যেটি অ্যাভেঞ্জার সিরিজের চতুর্থ এবং শেষ বিনিয়োগ হতে যাচ্ছে। যেখানে এর প্রস্তুতকারকরা মুখে কুলুপ এটে বসে আছেন সেখানে ট্রেইলারে ক্ষুদ্র অংশগুলোও হতাশ করছিলো। এরই মধ্যে দুই দুইটা ট্রেইলার বের হয়েছে এবং আনুষ্ঠানিক সিনোপসীসও বের হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে অ্যাভেঞ্জাররা সকলে মিলে একত্রে থানসের আঙ্গুলের “স্ন্যাপ’ থেকে কি করে অর্ধেক পৃথিবী ধ্বংস থেকে রক্ষা করা যায় তার ছক কষছে।

সিনোপসীসে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালে মুক্তি পাওয়া ‘অ্যাভেঞ্জার, ইনফিনিটি ওয়ার” এর পাগল টাইটান থানস অর্ধেক বিশ্বে ধ্বংসলীলা চালায়। অবশিষ্ট মিত্রদের সাথে করে অ্যাভেঞ্জারদের আবারো সব কিছু পুনরুদ্ধার করতে এবং বিশ্বে আগের মত স্বাভাবিকত্ব ফিরিতে আনতে হবে তার জন্য যে পরিণতি ভোগ করতে হয় হোক।

আরো বেশি আকর্ষণীয় কিছু ভক্তেরা আশা করতেই পারেন যখন মার্ভেলের প্রেসিডেন্ট কেভিন ফেইজ ঘোষণা দিয়েছেন সিনেমার মাত্র প্রথম পনের মিনিটেই মার্ভেলের বাণিজ্যিক সিকুয়েন্স গুলো হয়ে যাবে। এই তিন ঘণ্টার বিশাল ব্যাপ্তির সিনেমায় একটা আনুষ্ঠানিক বিরতিরও ঘোষণা দেয়া হবে।  

Anonymous এর ছবি
CAPTCHA
এই প্রশ্নটি আপনি একজন মানব ভিজিটর কিনা তা যাচাই করার জন্য এবং স্বয়ংক্রিয় স্প্যাম জমাগুলি প্রতিরোধ করার জন্য।